শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে আগুনে একটি বাড়ি পুড়ে ছাই, ক্ষতি প্রায় ১০ লক্ষ টাকা

প্রকাশিত: ১২:৩৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০২০

বিদ্যুতের শর্টসার্কিটের সৃষ্ট আগুনে ভেদরগঞ্জ পৌরসভার বাজারস্থ সোনালী ব্যাংক ও প্রাণী সম্পদ কার্যালয়ের মাঝখানের একটি বাড়ির ৪টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে ৬ লক্ষ টাকার মালামাল, নগদ ১ লক্ষ টাকা সহ প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানা যায়। ১৬ নভেম্বর সোমবার দুপুর ১২টার দিকে শর্টসার্কিট হয়ে এ আগুনের সূত্রপাত বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়।
শরীয়তপুর সদর ও ডামুড্যা থেকে আশা ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ও স্থানীয় জনগণের সহযোগিতায় তিন ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এর মধ্যে বাড়ির ঘরে থাকা সমস্ত মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। চারপাশে পাকা দালান থাকার কারণে আগুনের লেলিহান বিস্তার ঘটাতে পারেনি। ফলে বাজারটি অল্পতেই রক্ষা পেয়েছে। জানা গেছে ওই বাড়িতে গৌতম দাস নামে একজন ব্যবসায়ী ভাড়া থাকেন।
বাড়ির মূল মালিক সেলিম আহমেদ খোকন জানান, আমার বাড়িতে কাচাপাকা ৫টি ঘর আছে। এর মধ্যে আগুনে ৪টি ঘরই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ভাড়াটিয়া গৌতম দাস এর ব্যবসায়িক মালামাল সহ নগদ টাকা পুড়ে গেছে বলে শুনেছি।
শরীয়তপুর ফায়ার সার্ভিস এর স্টেশন অফিসার আবু দাউদ মোল্লা জানান, শরীয়তপুর সদর ও ডামুড্যা ইউনিটের সহযোগিতায় তিন ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি। এতে মালামালের ক্ষতি হলেও কোন প্রকার জীবনহানি বা কেউ আহত হয়নি।
ভাড়াটিয়া গৌতম দাস বলেন, আমার ব্যবসায়িক প্রায় ৫ লক্ষ টাকার মালামাল সহ ঘরে থাকা নগদ ১ লক্ষ টাকা সহ আমার সকল মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এখন আমার মাথা গোজার কোন স্থান আর রইল না। আমি পথে বসে গেলাম।
ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ এর পক্ষে সহকারী কমিশনার (ভূমি) শংকর চন্দ্র বৈদ্য ও ভেদরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ এবিএম রশিদুল বারী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করে বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে সম্ভব সকল প্রকার সহযোগিতা করা হবে।