আজ বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস

প্রকাশিত: ৩:৪০ অপরাহ্ণ, মে ৩, ২০২১

আজ ৩ মে , বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস । প্রতিবছর এই দিনে সারা বিশ্বজুড়ে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস পালিত হয় ।

আজ ৩ মে , বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস । প্রতিবছর এই দিনে সারা বিশ্বজুড়ে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস পালিত হয় । এবারে দিবসটির মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘ তথ্য জনগণের পণ্য । বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে বাংলাদেশ গত বছরের তুলনায় এ বছর আরাে এক ধাপ পিছিয়েছে ।

গত ২০ এপ্রিল রিপাের্টার্স উইদাউট বর্ডারস ( আরএসএফ ) ২০২১ সালের এই সূচক প্রকাশ করে । ২০১৯ সাল থেকে প্রতিবছর সেই সূচকে এক ধাপ করে পেছাচ্ছে বাংলাদেশ । সূচকে ১৮০ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৫২ তম । সূচকে সবার শীর্ষে রয়েছে নরওয়ে । ২০২০ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৫১ তম । আর ২০১৯ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৫০ তম । অর্থাৎ , গতবারের সূচকেও বাংলাদেশের এক ধাপ অবনতি হয়েছিল ।

এবারের সূচকে প্রতিবেশী দেশগুলাের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান সবার নিচে । বাংলাদেশের চেয়ে ভালাে অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তান ( ১৪৫ ) , ভারত ( ১৪২ ) , মিয়ানমার ( ১৪০ ) , শ্রীলঙ্কা ( ১২৭ ) , আফগানিস্তান ( ১২২ ) , নেপাল ( ১০৬ ) , মালদ্বীপ ( ৭৯ ) , ভুটান ( ৬৫ ) । বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গণমাধ্যম কতটা স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে , তার ভিত্তিতে ২০০২ সাল থেকে আরএসএফ এই সূচক প্রকাশ করে আসছে । ১৯৯১ সালে ইউনেস্কোর ২৬ তম সাধারণ অধিবেশনের সুপারিশ অনুসারে , ১৯৯৩ সালে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় ৩ মে তারিখটিকে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের স্বীকৃতি দেওয়া হয় । এরপর থেকেই দিবসটি বিশ্বজুড়ে পালন করা হচ্ছে ।

সাংবাদিকরা এ দিবসটি পালন করে আসছেন । সাংবাদিকতার স্বাধীনতা , গণমাধ্যমের মৌলিক নীতিমালা অনুসরণ , বিশ্বব্যাপী গণমাধ্যমের স্বাধীনতার মূল্যায়ন , পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে ক্ষতিগ্রস্ত ও জীবনদানকারী সাংবাদিকদের স্মরণ ও তাদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয় দিবসটিতে । জাতিসংঘের ঢাকা কার্যালয় থেকে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস উপলক্ষে রােববার মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের একটি বার্তা প্রচার করা হয় । জাতিসংঘ মহাসচিব ‘ উইন্ডহােক ঘােষণার ৩০ বছর ‘ শীর্ষক বাণীতে গণমাধ্যম বিষয়ে বলেন , কোভিড -১৯ মহামারির সময় আমরা বিশ্বব্যাপী যে চ্যালেঞ্জ মােকাবিলা করেছি , সেগুলাে জীবন বাঁচাতে , শক্তিশালী , স্থিতিশীল সমাজ গঠনে নির্ভরযােগ্য , যাচাইকৃত এবং সর্বজনীন ভূমিকাকে চিহ্নিত করে । মহামারি এবং জলবায়ুর জরুরি অবস্থাসহ অন্যান্য সংকটময় সময়ে সাংবাদিক এবং গণমাধ্যমকর্মীরা ক্ষতিকর ভুল এবং মিথ্যাচারকে মােকাবিলাসহ আমাদের দ্রুত পরিবর্তিত ও প্রায়ই অপ্রতিরােধ্য তথ্যের দৃশ্যপট তুলে ধরতে সহায়তা করে । তিনি আরাে বলেন , সাংবাদিকতা হলাে একটি গণসম্পদ । মহামারির অর্থনৈতিক প্রভাব অনেক প্রচার মাধ্যমকে কঠোরভাবে আঘাত করেছে , যা তাদের অস্তিত্বের জন্য হুমকিস্বরূপ । এছাড়া বাজেট সংকটের সঙ্গে সঙ্গে নির্ভরযােগ্য তথ্য পাওয়াও কঠিন হচ্ছে । এ শূন্যস্থান পূরণ করতে গুজব , মিথ্যা এবং চূড়ান্ত বা বিভাজিত মতামত বৃদ্ধি পাচ্ছে । আমি সব সরকারকে তাদের ক্ষমতানুযায়ী একটি মুক্ত , স্বাধীন এবং বহুমুখী প্রচার মাধ্যমকে সমর্থন করার জন্য সবকিছু করার আহ্বান জানাচ্ছি । গুতেরেস আরাে বলেন , ভুল তথ্য এবং অপপ্রচাররােধে মুক্ত এবং স্বাধীন সাংবাদিকতা আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি । জাতিসংঘ সাংবাদিক নিরাপত্তা বিষয়ক কর্মপরিকল্পনার লক্ষ্য হচ্ছে , বিশ্বজুড়ে গণমাধ্যমকর্মীদের জন্য একটি নিরাপদ পরিবেশ তৈরি করা । কারণ তথ্য হচ্ছে একটি গণসম্পদ । আজ আমরা একটি মুক্ত , স্বাধীন এবং বহুত্ববাদী আফ্রিকান সংবাদমাধ্যম উন্নয়নের জন্য উইন্ডহােক ঘােষণাপত্রের ৩০ তম বার্ষিকী উদযাপন করছি ।

দিবসটি উপলক্ষে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ( টিআইবি ) বিবৃতি দিয়েছে । এতে বলা হয়েছে , কোভিড ১৯ অতিমারিকালে গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের পেশাগত ও অর্থনৈতিক ঝুঁকি আরও প্রকট হয়েছে । বহু গণমাধ্যম বন্ধ হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি অসংখ্য সাংবাদিক চাকুরিচ্যুত কিংবা পেশা পরিবর্তনে বাধ্য হয়েছেন । তাই মুক্ত গণমাধ্যম এবং তথ্যের অবাধ প্রবাহের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা ও আন্তর্জাতিক প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়নে অবিলম্বে স্বাধীন ও পেশাদার গণমাধ্যমের অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিতের আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি । দিবসটি উপলক্ষ্যে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড . ইফতেখারুজ্জামান বলেন , সংবিধানের ৩৯ অনুচ্ছেদে চিন্তা ও বিবেকের স্বাধীনতার নিশ্চয়তা প্রদানের পাশাপাশি প্রত্যেক নাগরিকের বাক ও ভাব প্রকাশের স্বাধীনতা এবং সংবাদপত্রের স্বাধীনতার নিশ্চয়তা প্রদান করা হয়েছে । কিন্তু প্রকাশ্য ও প্রচ্ছন্ন নানামুখী চাপ ও বিধিনিষেধের বেড়াজালে সাংবিধানিক এই অধিকার মলাটবদ্ধ নথিতে রূপান্তরিত হয়েছে । এদিকে , বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে । সােমবার দুপুর ৩ টায় মানবাধিকার সংগঠন ‘ নাগরিক’র আয়ােজনে কোভিড অতিমারি , সংবাদপত্র ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা শীর্ষক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে । ৩ মে বিশ্বব্যাপী সংবাদপত্রের স্বাধীনতা মূল্যায়ন করতে , গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপ থেকে সুরক্ষা পেতে এবং সাংবাদিকতা পেশার দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে প্রাণ হারানাে সাংবাদিকদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস উদযাপন করবে সংস্থাটি ।